খান আতার মরনোত্তর বিচার চাইলেন মুক্তিযোদ্ধা ও চলচ্চিত্র পরিচালক চুন্নু

October 23, 2017 5:06 AMViews: 19

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে : নিউইয়র্কে সপরিবারে বসবাসরত মুক্তিযোদ্ধা ও চলচ্চিত্র পরিচালক ও প্রয়োজক আবুল বাশার চুন্নু ২২ অক্টোবর রোববার বলেছেন, ‘একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে অবস্থান গ্রহণকারি খান আতাউর রহমান শুধু মিডিয়ায় বিবৃতিই দেননি, তিনি পাক হায়েনাদের সাফাই গেয়ে রেডিও-টিভিতে অনুষ্ঠানও করেছেন। এজন্যে, স্বাধীনতার পরই আত্মগোপনে যেতে হয় তাকে।’

চুন্নু বলেন, ‘কিন্তু আমরা চাচ্ছিলাম তার ট্যালেন্টকে ব্যবহার করে ভালো চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্যে। সে প্রত্যাশায় আমরা তাকে অভয় দেই যে, অফিসে এলে কেউ তাকে হামলা করবে না।’ ‘সে সময়ে তেজগাঁ থানার এসআই   লুৎফর রহমান কিসলু এবং আমি দিন-রাত ভাগ করে তার নিরাপত্তা নিশ্চিত করি। কাকরাইলের দু’তলা অফিসে বসতেন তিনি। এভাবেই খান আতাউর রহমান স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে সক্ষম হন’-উল্লেখ করেন চুন্নু।

সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের যুক্তরাষ্ট্র শাখার কর্মকর্তাগণকে পাশে রেখে মুক্তিযোদ্ধা চুন্নু বলেন, ‘সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও মুক্তিযোদ্ধা নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু যে কথা বলেছেন খান আতার ব্যাপারে, তা সত্য। খান আতা মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষের শক্তি ছিলেন। তিনি পাকিস্তানীদের পক্ষেই সক্রিয় ছিলেন।’

‘আমি খান আতার মরনোত্তর বিচার চাই। যারাই মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছে, তাদেরই বিচার হওয়া উচিত’-উল্লেখ করেন এই মুক্তিযোদ্ধা।

খান আতার স্বরূপ উন্মোচনের জন্যে বিবেকসম্পন্ন সকলকে সোচ্চার হবার আহবান জানিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা চুন্নু। এই বিবৃতি প্রদানের সময় চুন্নুর পাশে ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের সভাপতি রাশেদ আহমেদ, সেক্রেটারি রেজাউল বারি, সহ-সভাপতি হারুন ভ’ইয়া এবং সহ-সম্পাদক সোলায়মান আলী।

 

 

Leave a Reply


*