আন্তর্জাতিক ভাবে বিশ্ব সেরার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ

August 27, 2014 12:59 PMViews: 142

তৈয়বুর রহমান টনি টরান্টো কানাডাঃ-

১৯৭১ সালে তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে (এখন সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম…’ বলার মধ্য দিয়েই কার্যত স্বাধীনতার ডাক দেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রেরণাদায়ী ওই ভাষণ এখনও আলোচিত। এ নিয়ে লেখা হয়েছে কবিতাও। এবার যুক্তরাজ্যের একটি প্রকাশনায় বঙ্গবন্ধুর ওই ভাষণ স্থান পেয়েছে। ইংরেজিতে অনূদিত ভাষণের বইটির নাম ‘উই শ্যাল ফাইট অন দ্য বিচেস- দ্য স্পিচেস দ্যাট ইন্সপায়ার্ড হিস্টোরি’। খ্রিস্টপূর্ব ৪৩১ থেকে ১৯৮৭ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত সেরা ভাষণ নিয়ে ২২৩ পৃষ্ঠার বইটি সঙ্কলন করেছেন জ্যাকব এফ ফিল্ড। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী স্যার উইনস্টন চার্চিলের ভাষণ থেকে নেয়া শিরোনামের এ সঙ্কলন গ্রন্থের শেষ ভাষণটি যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রিগ্যানের ‘টিয়ারস ডাউন ওয়াল’। বইটির ২০১ পৃষ্ঠায় ‘দ্য স্ট্রাগল দিস টাইম ইজ দ্য স্ট্রাগল ফর ইনডিপেন্ডেন্স’ শিরোনামে স্থান পেয়েছে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ।আন্তর্জাতিকভাবে বিশ্ব সেরার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ।full_1369904578_1408453694

 

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান বলেন, বঙ্গবন্ধুর বিশ্বসেরা ভাষণের বিষয়টি এত দিন আমরা বলে এসেছি, এখন তা বাস্তবায়িত হয়েছে। আন্তর্জাতিকভাবে তা প্রকাশ হলো। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণটি বিশ্বসেরা ভাষণের একটি। এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। তবে বিশ্ব সেরা ভাষণ নিয়ে আন্তর্জাতিকভাবে অনেক প্রকাশনা রয়েছে। কোনোটিতে এ পর্যন্ত অন্তর্ভুক্ত ছিল না। এই প্রথম আন্তর্জাতিকভাবে বিশ্ব সেরা ভাষণগুলোর তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হলো ৭ মার্চের ভাষণ। এটি অনেক আনন্দের। বইটি নিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করবেন বলেও জানান বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক। প্রাবন্ধিক ও মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি মফিদুল হক বইটি সংগ্রহ করেছেন বলে জানান তিনি। মফিদুল হক বলেন, সম্প্রতি যুক্তরাজ্য থেকে বইটি প্রকাশিত হয়েছে। কানাডা সফরকালে একটি মাত্র কপি নিজের জন্য সংগ্রহ করেন তিনি। সেরা ভাষণ নিয়ে অনেক বই রয়েছে। বঙ্গবন্ধুর ভাষণ বিশ্ব সেরার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে কোনো প্রকাশনা আগে পাইনি। কানাডা থেকে শনিবার ফিরেছেন মফিদুল হক।

 

Leave a Reply


*