আটটি শিক্ষা বোর্ড ও মাদ্রাসা এবং কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ফল প্রকাশ

August 13, 2014 9:16 AMViews: 125

ঢাকা: ২০১৪ সালের উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ফল আজ প্রকাশিত হয়েছে। পাসের হার শতকরা ৭৮ দশমিক ৩৩ ভাগ। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ আজ দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে পরীক্ষার এই ফল ঘোষণা করেন।চলতি বছরে ৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড এবং মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে মোট ১১ লাখ ২৯ হাজার ৯৭২ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। পাস করেছে ৮ লাখ ৮৫ হাজার ৭০ জন। পাসের হার শতকরা ৭৮ দশমিক ৩৩ ভাগ। গত বছর পাসের হার ছিল শতকরা ৭৪ দশমিক ৩০ ভাগ।গত বছরের তুলনায় চলতি বছরে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা এক লাখ ২৭ হাজার ৪৭৬ জন বৃদ্ধি পেয়েছে।

13082014_007_HSC_RESULTS

চলতি বছরে মোট জিপিএ ৫ পেয়েছে ৭০ হাজার ৬০২ জন। গত বছর জিপিএ ৫ পেয়েছিল ৫৮ হাজার ১৯৭ জন। চলতি বছর বৃদ্ধি পেয়েছে ১২ হাজার ৪০৫ জন। শতভাগ পাস করা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা এক হাজার ১৪৭টি। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ৮৪৯টি। বৃদ্ধি পেয়েছে ২৯৮টি। এক জনও পাস করো এমন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ২৪টি। গত বছর এই সংখ্যা ছিল ২৫টি। পরীক্ষায় চলতি বছরে মোট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ছিল ৭ হাজার ৯৪৯টি। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ৭ হাজার ৬৫৭টি।  চলতি বছরে মোট পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা ছিল ২ হাজার ৩৫৩টি। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ২ হাজার ২৮৮টি।

৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থী সংখ্যা ছিল ৯ লাখ ১৪ হাজার ৬০৩ জন। পাস করেছে ৬ লাখ ৯২ হাজার ৬৯০ জন। পাসের হার শতকরা ৭৫ দশমিক ৭৪ ভাগ। জিপিএ ৫ পেয়েছে মোট ৫৭ হাজার ৭৮৯ জন। গত বছর জিপিএ ৫ পেয়েছিল ৪৬ হাজার ৭৩৬ জন। ৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে এক লাখ ৫৫ হাজার ৭৫৫ জন পরীক্ষার্থী বিজ্ঞান ও গার্হস্থ্য বিভাগে অংশ গ্রহণ করে। পাস করেছে এক লাখ ২৯ হাজার ১৬৭ জন। পাসের হার শতকরা ৮২ দশমিক ৯৩ ভাগ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ৩৪ হাজার ৭ জন। মানবিক, ইসলামিক শিক্ষা ও সংগীত বিভাগে ৪ লাখ ৬১ হাজার ২৬২ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। পাস করেছে ৩ লাখ ২১ হাজার ৭৭০ জন। পাসের হার শতকরা ৬৯ দশমিক ৭৬ ভাগ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ৭ হাজার ৮৩৮ জন।

ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপে মোট ২ লাখ ৯৭ হাজার ৫৮৬ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। পাস করেছে ২ লাখ ৪১ হাজার ৭৫৩ জন। পাসের হার শতকরা ৮১ দশমিক ২৪ ভাগ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ১৫ হাজার ৯৪৪ জন। ৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে বিজ্ঞান ও গার্হস্থ্য, মানবিক, ইসলামী শিক্ষা, সংগীত এবং ব্যবসায় শিক্ষায় মোট ৯ লাখ ১৪ হাজার ৬০৩ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। পাস করেছে ৬ লাখ ৯২ হাজার ৬৯০ জন। পাসের হার শতকরা ৭৫ দশমিক ৭৪ ভাগ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ৫৭ হাজার ৭৮৯ জন। বিদেশ কেন্দ্রে মোট ২১১ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। পাস করেছে ১৫৩ জন। পাসের হার শতকরা ৭২ দশমিক ৫১ ভাগ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ১৯ জন। মোট ৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫টি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে চলতি বছরে মোট এক লাখ ৫ হাজার ৮৪৯ জন পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। পাস করেছে ৯৯ হাজার ৫৮১ জন। পাসের হার শতকরা ৯৪ দমমিক শূন্য ৮ ভাগ। গত বছর পাসের হার ছিল শতকরা ৯১ দশমিক ৪৬ ভাগ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ৬ হাজার ২৫ জন। গত বছর জিপিএ ৫ পেয়েছিল ৬ হাজার ৯ জন।কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে চলতি বছরে মোট এক লাখ ৪ হাজার ৫৮৭ জন পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। পাস করেছে ৮৮ হাজার ৯২৫ জন। পাসের হার শতকরা ৮৫ দশমিক শূন্য ২ ভাগ। গত বছর পাসের হার ছিল ৮৫ দশমিক শূন্য ৩ ভাগ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ৬ হাজার ৩৯৩ জন। গত বছর জিপিএ ৫ পেয়েছিল ৪ হাজার ৬৫৮ জন।

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় চলতি বছরে মোট ৬ লাখ ৮৯ জন ছাত্র পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। পাস করেছে ৪ লাখ ৬৭ হাজার ২১৪ জন। পাসের হার শতকরা ৭৭ দশমিক ৮৬ ভাগ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ৩৮ হাজার ৭৮৭ জন। চলতি বছরে মোট ৫ লাখ ২৯ হাজার ৮৮৩ জন ছাত্রী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। পাস করেছে ৪ লাখ ১৭ হাজার ৮৫৬ জন। পাসের হার শতকরা ৭৮ দশমিক ৮৬ ভাগ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ৩১ হাজার ৮১৫ জন।

Leave a Reply


*